fbpx

মুজিবনগর সরকার গঠন ও শপথ গ্রহণ

১৭ এপ্রিল মুজিব নগর গঠন
১৯৭১ সালের এই দিনে মুজিবনগর সরকার গঠিত হয়েছিল। একটি নিজস্ব স্বাধীন দেশের স্বপ্নের বাস্তবায়নের জন্য এই সরকার গঠন করা হয়েছিল।

মুজিবনগর সরকার কি

মুজিবনগর(র্পূবনাম: বদ্যৈনাথতলা), বাংলাদশেরে মেহেরপুর জেলায় অবস্থতি এটি একটি ঐতহিাসকি স্থান । মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী বাংলাদশেরে প্রথম অস্থায়ী সরকার যা ১০ এপ্রলি ১৯৭১ সালে গঠন করা হয়।তৎকালীন ভবেরপাড়ার বৈদ্যনাথতলায় র্বতমান মুজিবনগরের আম্রকাননে ১৭ এপ্রলি ১৯৭১ এই অস্থায়ী সরকার বা প্রবাসী সরকার শপথ গ্রহণ করে। এই সরকারের রাষ্ট্রপতি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শখে মুজিবুর রহমান এবং অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি ছিলেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম। মুজিবনগর সরকাররে ঐতিহ্য ধরে রাখতে এখানে গড়ে তোলা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি কমপ্লক্সে।

স্বাধীন বাংলাদশেরে সূতিকাগার হচ্ছে মেহেরপুরের বৈদ্যনাথতলা। ১৯৭১ সালরে ১৭ এপ্রলি এই জায়গার নামকরণ করা হয় ‘মুজিবনগর’। বাংলাদশে সরকাররে প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ র্গবের সঙ্গে এই নামকরণ করছেলিনে। তখন সরকারি নথিতে লেটার হেডে লেখা থাকত ‘গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদশে সরকার, মুজিবনগর’। সরকারের ঠিকানা ছিল মুজিবনগর।

মুজিবনগর হলো বাংলাদশেরে উৎপত্তস্থিল। মুজিবনগর থেকেই স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের কথা র্কাযত সারা বিশ্ব আনুষ্ঠানিকভাবে জানল। ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর আত্মসর্মপণ র্পযন্ত মুজিবনগর ছিল সরকারের রাজধানী।

মুজিবনগর সরকারের সদস্যসমূহঃ

২৬ মার্চ ১৯৭১ সালে প্রথম প্রহরে আনুমানিক রাত ১২ টা ২০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইপিআর ওয়ারলেস যোগে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী কাছে একটি বার্তা বা বাণী প্রেরণ করেন। তিনি এখানে উল্লেখ করেন যে, “This may be last message to you from today Bangladesh is independent” এটাই স্বাধীনতার ঘোষণা এবং ঐ মুহূর্ত থেকে বাংলাদেশ স্বাধীন। ২৬ মার্চ ১৯৭১ সাল থেকেই বাংলাদেশ স্বাধীনতা ঘোষণা করার মাধ্যম দিয়ে স্বাধীন। কাজেই একটি স্বাধীন দেশে একটি সরকার থাকতে হবে। যার প্রেক্ষাপটে একটি সরকার গঠন করা অত্যাবশ্যকীয় হয়ে দাঁড়ায়। ২৫ মার্চ ১৯৭১ সালে গণহত্যা শুরু হলে আওয়ামী লীগের তৎকালীন কিছু নেত্রীবর্গ ভারত সীমান্ত পার হয়ে ভারতের অভ্যন্তরে আশ্রয় নেয়। এরপর তারা আলাপ-আলোচনা করে ১০ এপ্রিল ১৯৭১ সালে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলায় স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠন করে।রাষ্ট্রপতি শাসিত সরকার পদ্ধতির এই সরকারের মোট সদস্য সংখ্যা ছিল ৬ জন।
সরকারের সদস্যগণঃ
১.রাষ্ট্রপতি – মুজিবুর রহমান
২.উপরাষ্ট্রপতি -সৈয়দ নজরুল ইসলাম নজরুল ইসলাম
৩.প্রধানমন্ত্রী- তাজউদ্দিন আহমেদ
৪.অর্থমন্ত্রী- ক্যাপ্টেন (অবসরপ্রাপ্ত) মনসুর আলী
৫.স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী- এএইচএম কামরুজ্জামান
৬.পররাষ্ট্রমন্ত্রী- খন্দকার মোশতাক আহমদ


ঐতিহাসিক মুজিবনগর চিত্র
মুজিবনগর সরকার গঠন

মুজিবনগর সরকারের শপথ গ্রহণঃ


১৭ এপ্রিল ১৯৭১ মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর অর্থাৎ তৎকালীন কুষ্টিয়া জেলার মেহেরপুর মহকুমার বৈদ্যনাথতলা ইউনিয়নের ভবেরপাড়া গ্রামে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার শপথ গ্রহণ করে।বৈদ্যনাথতলা ইউনিয়ন ও ভবেরপাড়া গ্রাম দুটোকে একত্রে নামকরণ করা হয়েছে মুজিবনগর। এখানে কে শপথ বাক্য পাঠ করেন ১২৭ জন সাংবাদিক সেখানে উপস্থিত ছিল।
এরপুর্বে কাকডাকা ভোরে কলকাতা প্রেসক্লাব এবং গ্রাউন্ড হোটেলের পাদদেশ থেকে প্রায় শতাধিক বিদেশি সাংবাদিক বেতার ও টিভি প্রতিনিধিদেরকে নিয়ে এখান থেকে যাত্রা শুরু করা হয়। এখানে গিয়ে প্রথমে উপ রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম কে শপথ বাক্য পাঠ করান অধ্যাপক ইউসুফ আলী।এরপর উপ রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম সরকার অন্যান্য মন্ত্রীদের শপথ বাক্য পাঠ করেছিলেন। এছাড়া প্রধান সেনাপতি এমএজি ওসমানী মোহাম্মদ আতাউল গনি কে শপথ বাক্য পাঠ করেছিলেন উপরাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম।
শপথ বাক্য পাঠ এর পর উপরাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম কে ইপিআর এবং আনসার বাহিনীর দুটো প্লাটন গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এই দুটো প্লাটুনের নেতৃত্বে ছিলেন যথাক্রমে মাহবুব উদ্দিন আহমেদ এবং তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুর।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের মাত্র দুই ঘন্টা পরে পাকিস্তান বিমান বাহিনী এখানে বোমা হামলা চালিয়েছিল মেহেরপুর দখল করে নিয়েছিল।১৭ মার্চ ১৯৭১ সালে পাকিস্তানী বাহিনী মেহেরপুর ও মুজিবনগর দখল করে নিয়েছিল।

বনজ সম্পদ

বাংলাদেশের বনজ ও খনিজ সম্পদ

বাংলাদেশের বনজ সম্পদ উদ্ভিদের বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে বাংলাদেশের বনভূমি তিন প্রকারঃ১.ক্রান্তীয় চিরহরিৎ ও পত্রপতনশীল বৃক্ষের বনভূমিঃ চট্টগ্রাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম ও সিলেটের এলাকা জুড়ে এ বনাঞ্চল বিস্তৃত।

Read More »
বাংলাদেশের কুটির শিল্প

বাংলাদেশের শিল্প সম্পদ

বাংলাদেশের শিল্প সম্পদ এর উন্নয়ন কৃষিপ্রধান দেশ বাংলাদেশ শিল্পক্ষেত্রে এখনও কাঙ্খিত সাফল্য অর্জন করতে পারেনি। শিল্পখাতগুলোতে যথাযথ দিকনির্দের্শন, পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা প্রদান, সরকারী আনুকুল্য প্রভৃতির মাধ্যমে

Read More »
শিক্ষা কমিশন

বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা

স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম ‘বাংলাদেশ শিক্ষা কমিশন’ গঠন শিক্ষা কমিশনঃ ভারতীয় উপমহাদেশে শিক্ষা কমিশনের যাত্রা শুরু ১৮৮২ সালে। উইলিয়াম হান্টারকে প্রধান করে গঠিত এই কমিশনের অন্যতম

Read More »
Layer 1
Login Categories
error: Content is protected !!
এই ওয়েবসাইটটি কুকিজ ব্যবহার করে এবং আপনার ব্রাউজিং অভিজ্ঞতা মসৃণ করার জন্য আপনার কিছু ব্যক্তিগত তথ্য (ওয়েব ব্রাউজিং সম্পর্কীয়) সংরক্ষণ করে। আপনার ব্রাউজারের login-এর তথ্য সংরক্ষণের জন্যে "Ok, I acknowledge" বাটনে ক্লিক করুন।